Largest Domain Hosting Market

Domain, Hosting and Information Technology Related Web Site

উইন্ডোজ-৮/১০ : উইন্ডোজ রিকভারি ড্রাইভ ব্যবহার করে উইন্ডোজ ট্রাবলশুটিং

https://domainhostingmarket.com/wp-content/uploads/2016/08/offer-vps.gif

আপনার নিকট যদি উইন্ডোজ রিকভারি ড্রাইভ তৈরি করা থাকে তবে তা আপনাকে উইন্ডোজ ট্রাবলশুট করার সময় সাহায্য করবে, যখন আপনার কম্পিউটারের অপারেটিং সিস্টেম অর্থাৎ উইন্ডোজ সঠিকভাবে বুটআপ করতে র্ব্যথ হচ্ছে।উইন্ডোজ চালু হচ্ছে না এই পরিস্থিতি যে কোনো সময় ঘটতে পারে। সফটওয়্যার ইস্যু, উইন্ডোজ পরিচালনায় ত্রুটি, উইন্ডোজের সেটিংসের পর্রিবতনে সৃষ্ট ঝামেলা এমনটি ভাইরাসজনিত কারণে আপনার কম্পিউটারের উইন্ডোজ বুটআপ নাও করতে পারে। তখনই আপনার এই সমস্যা সহজে, অল্প সময়ে সমাধান করে দিবে উইন্ডোজ রিকভারি ড্রাইভ।অন্যথায় আপনাকে পুনরায় ফ্রেস উইন্ডোজ ইনস্টল দেওয়ার পাশাপাশি সকল অ্যাপ্লিকেশনগুলোও ইনস্টল করতে হবে, যা আপনার জন্য যন্ত্রণাদায়ক।তাই উইন্ডোজের রিকভারি ড্রাইভ তৈরি করা বুদ্ধিমানের কাজ।উইন্ডোজ রিকভারি ড্রাইভ ব্যবহার করে আপনি উইন্ডোজ রিফ্রেস অথবা রিসেট করতে পারবেন।
কিভাবে উইন্ডোজ রিকভারি ড্রাইভ তৈরি করবেন:
প্রথম ধাপ : প্রথমে আপনি উইন্ডোজ র্সাচ অপশনে ( Press Windows Key + W ) গিয়ে রিকভারি ড্রাইভ ( Recovery Drive) লিখুন।র্সাচ রেজাল্ট থেকে
“ক্রিয়েট ‍এ রিকভারি ড্রাইভ” নির্ধারণ করুন।ইউজার একাউন্ট কন্ট্রোল বার্তা আসলে ইয়েস ক্লিক করুন।
দ্বিতীয় ধাপ: ক্রিয়েট এ রিকভারি ড্রাইভ টুলস্ চালু হলে নেক্সট ক্লিক করুন।এ অবস্থায় উইন্ডোজ আপনার কম্পিউটারে সংযুক্ত করা এক্সটার্নাল ড্রাইভের (পেন ড্রাইভ)একটি লিস্ট খুঁজে বের করবে।
তৃতীয় ধাপ: কম্পিউটারে সংযুক্ত এক্সটার্নাল ড্রাইভটি (পেন ড্রাইভ)সিলেক্ট করে পরবর্তী পদক্ষেপের জন্য নেক্সট ক্লিক করুন।
চর্তুথ ধাপ: উইন্ডোজ একটি সাবধান বাণী দিবে যে, আপনার এক্সটার্নাল ড্রাইভের (পেন ড্রাইভ)তথ্য ‍মুছে যাবে পরবর্তী পদক্ষেপ শুরু হবার সাথে সাথেই।নিরাপত্তার জন্য আপনি পেন ড্রাইভের তথ্য অন্যত্র ব্যাকআপ নিয়ে রাখবেন।
তারপর ক্রিয়েট সিলেক্ট করুন। পেন ড্রাইভটি ফরমেট হয়ে উইন্ডোজ রিকভারি ইমেজ এবং প্রয়োজনীয় রিকভারি টুলস্ আপনার পেন ড্রাইভে কপি করা শুরু হবে।
শেষ ধাপ: যখন রিকভারি ড্রাইভ ইজ রেডি বার্তা আসবে ফিনিস বাটনে ক্লিক করুন।
আপনার কম্পিউটার থেকে পেন ড্রাইভটি খুলে ফেলুন। এই পেন ড্রাইভটি এখন আপনার উইন্ডোজ রিকভারি ড্রাইভ এবং এটা আপনার কম্পিউটারের উইন্ডোজ রিফ্রেস অথবা রিসেট করার প্রয়োজনে কাজে লাগবে। পেন ড্রাইভটি নিরাপদ স্থানে রাখুন এবং এতে অ্ন্য ফাইল সংরক্ষণ করার কাজে ব্যবহার করবেন না।
সিস্টেম রিকভারি ড্রাইভ ব্যবহার করে উইন্ডোজ ট্রাবলশুটিং
যখন উইন্ডোজ চালু হতে বারবার র্ব্যথ হবে তখন উইন্ডোজ অ্যাডভান্স ‍র্স্টাটআপ অপশন সয়ংক্রিয়ভাবে চালু হবে, যা র্স্টাটআপের সমস্যা সমাধানে ব্যবহার করা যাবে।যদি উইন্ডোজের নিজস্ব অ্যাডভান্স র্স্টাটআপ অপশন ব্যবহার করে উইন্ডোজ পুনরুদ্ধারে র্ব্যথ হন তখনই সহজে ও অল্প সময়ের মধ্যেই আপনি আপনার তৈরিকৃত উইন্ডোজ রিকভারি ড্রাইভটি ব্যবহার করে উইন্ডোজের যাবতীয় ত্রুটি সমাধান করে উইন্ডোজ পুনরায় চালু করতে সক্ষম হবেন।
প্রথমে আপনার তৈরিকৃত উইন্ডোজ রিকভারি ড্রাইভটি আপনার কম্পিউটারে সংযোগ করুন। তারপর কম্পিউটার রির্স্টাট দিয়ে বায়েস সিস্টেমে প্রবেশ করে বুট অগ্রাধিকার সেটিংস পরিবর্তন. করে পেন ড্রাইভটি ফাস্ট বুট ডিভাইস হিসেবে নির্ধারণ করে সেভ করুন। আপনার কম্পিউটার পুনরায় রির্স্টাট হবে এবং উইন্ডোজ রিকভারি ড্রাইভ হতে বুট হবে।
এবার ইউএস ভাষা নির্ধারন করুন।
ট্রাবলশুট অপশন ক্লিক করুন। যদি আপনি আপনার কম্পিউটারের সব ডাটা মুছে ফেলতে চান তাহলে রিসেট ইউর পিসি অপশনটি বেছে নিন। ভালোভাবে অনস্ক্রীনের বার্তাগুলো পড়ে এবং আপনার প্রয়োজন অনৃযায়ী ব্যবস্থা বেছে নিয়ে নেক্সট ক্লিক করুন।
পরবর্তীতে “ অনলি দ্যা ড্রাইভ হ্যায়ার উইন্ডোজ ইজ ইনস্টলড ” অপশনটি নির্ধারণ করুন।
এখানে “জাস্ট রিমুভ মাই ফাইলস অথবা ফুললি ক্লিন দ্যা ড্রাইভ” অপশন দুটি থেকে আপনার প্রয়োজন অনুযায়ী নির্ধারণ করুন।পরবর্তীতে র্স্টাট ক্লিক করুন।

Share This:

0 0 vote
Article Rating
Subscribe
Notify of

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
Domain Hosting Market © 2015